‘বোমা’ ফাটালেন রোনালদো!

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সম্পর্ক যে ভালো নেই তা মোটামোটি সবারই জানা। তবে সিআরসেভেনের ভিতর যে এত ক্ষোভ জমে ছিল তা ক্ষুণাক্ষরেও বুঝেনি কেউ। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সেই ক্ষোভের কিছুটা উগরে দিয়েছেন রোনালদো।

পিয়ার্স মরগানকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কোচ টেন হাগ ও ক্লাব–সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ক্ষোভের বিস্ফোরণ ঘটিয়েছেন ৩৭ বছর বয়সী এ পর্তুগিজ তারকা। কোনো রাখঢাক না রেখেই জানিয়েছেন, কোচের প্রতি তার কোনো সম্মান নেই। স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন বিদায় নেওয়ার পর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কোনো উন্নতি হয়নি বলেও মন্তব্য করেন এ তারকা।

ইউনাইটেড কোচ টেন হাগকে নিয়ে বেশ চাঁছাছোলা মন্তব্য করেছেন রোনালদো। রোনালদো বলেন, ‘তার জন্য আমার কোনো সম্মান নেই। কারণ, আমাকেও তিনি সম্মান দেখান না। কেউ আমাকে সম্মান না দিলে আমি তাকে সম্মান দিই না।

চলতি মৌসুমের শুরুতে রোনালদো ইউনাইটেড ছাড়ার জন্য চেষ্টা করেছিলেন। তবে যতটা না তিনি নিজে চেয়েছেন, তার চেয়ে বেশি নাকি কোচই তাকে তাড়াতে চেয়েছেন বলে দাবি করেছেন পর্তুগিজ তারকা। রোনালদো বলেন, ‘উনি চেয়েছেন আমি চলে যাই। শুধু কোচই নন, ক্লাবের আরও দুই–তিনজন ব্যক্তি আমাকে বের করে দিতে চেয়েছেন। আমি বিশ্বাসঘাতকতার শিকার হয়েছি।’

দীর্ঘ সাক্ষাৎকারে সাবেক সতীর্থ ওয়েইন রুনিকেও এক হাত নিয়েছেন রোনালদো। সাবেক ইংল্যান্ড অধিনায়কে নিয়ে রোনালদো বলেন, ‘আমি জানি না, উনি কেন আমাকে এত তীব্রভাবে সমালোচনা করেন। সম্ভবত উনি খেলা ছেড়ে দিয়েছেন আর আমি এখনো শীর্ষ পর্যায়ে খেলে চলেছি এ জন্য।’

বিশ্বকাপের কারণে ক্লাব ফুটবলে আপাতত দেড় মাসের ছুটি। পর্তুগালের হয়ে বিশ্বকাপ খেলতে শীঘ্রই কাতার যাবেন রোনালদো। বিশ্বকাপের আগে তার এমন সাক্ষাৎকারে তাই বেশ নড়েচড়েই বসেছেন ইউনাইটেডের কর্মকর্তারা।

You might also like