ভারতের দিল্লিতে শিথিল হচ্ছে লকডাউন

৩৪

করোনা সংক্রমণে পর্যুদস্ত নয়াদিল্লীর জীবনযাত্রা কিছুটা স্বাভাবিক হওয়ার পথে রয়েছে। সংক্রমণ কমায় ভারতের রাজধানী দিল্লিতে চলমান বিধিনিষেধ শিথিল করছে সরকার।

কোভিড পরিস্থিতির উল্লেখযোগ্য উন্নতি হওয়ায় রোববার মূখ্য মন্ত্রী কেজরিওয়াল ১৪ জুন সোমবার থেকে অনেক ক্ষেত্রেই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার ঘোষণা দেন। অনলাইন ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, কিছু কিছু ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে। তবে প্রায় সকল কর্মকান্ডই সোমবার ভোর ৫টা থেকে পুনরায় শুরু হয়ে যাবে।

ঘোষণা অনুযায়ী নয়দিল্লীর রেস্টুরেন্টগুলো ৫০ শতাংশ বসার ব্যবস্থা রেখে পুনরায় খুলে দেয়া হচ্ছে। বাজার-শপিং মল রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা রাখা যাবে। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সুইমিং পুল, রাজনৈতিক-ধর্মীয়-সামাজিক জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা থাকছে। গত ১৯ এপ্রিল থেকে লকডাউনের কারনে বন্ধ থাকা স্যালুন, বিউটিপার্লারও পুনরায় খুলে যাচ্ছে। সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সব ধরনের মার্কেট কমপ্লেক্স ও মল খোলা রাখা যাবে।

সরকারী অফিসে গ্রুপ এ স্তরের কর্মীদের ১০০ শতাংশ হাজিরা থাকবে। তবে বাকিদের ক্ষেত্রে ৫০%। প্রয়োজনীয়, জরুরি কাজ আগের মতোই চলতে থাকবে। উপাসনালয় খোলা থাকবে। তবে কোনও দর্শনার্থী থাকবে না। সাপ্তাহিক বাজার প্রতি মিউনিস্যিপল এলাকায় মাত্র একটা খোলা রাখা যাবে।

ব্যাঙ্কয়েট হল বা হোটেলে বিয়ের অনুষ্ঠান করা যাবে না। তবে বাড়িতে বা আদালতে ২০ জনের কম লোক নিয়ে বিয়ের আসর চলতে পারে। শেষকৃত্যে কেবলমাত্র ২০জন থাকতে পারবে।