মাগুরায় যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে চারজন নিহত

মাগুরা জেলার শালিখা উপজেলায় মাগুরা-যশোর সড়কের রামকান্তপুর এলাকায় যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে ঘটনাস্থলেই বাসের হেলপার ও দুইনারীসহ মোট চারজন নিহত হয়েছেন। রোববার বিকাল তিনটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতদের মধ্যে তিনজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। নিহতরা হলেন- বাসের হেলপার মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার লাঙ্গলবাঁধ গ্রামের মামুন হোসেন (৩০), শালিখা উপজেলার আনসার সর্দারের মেয়ে নাজমা খাতুন (৩০) ও শালিখার দীঘল গ্রামের তারিক বিশ্বাসের স্ত্রী সহিরুন বেগম (৪৫)। নিহত অপর পুরুষের পরিচয় শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।

শালিখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) বিশারুল ইসলাম জানান, যশোর থেকে মাগুরাগামী ‘বিসমিল্লাহ’ পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস রোববার বিকাল তিনটার দিকে রামকান্তপুরে এসে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পার্শ্ববর্তি খাদের পানিতে পড়ে গেলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে শালিখা থানার পুলিশসহ মাগুরা সদর ও শালিখা এবং যশোরের ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে উদ্ধার কাজ শুরু করেন। এ সময় চারজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি জানান, এ দুর্ঘটনায় কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছেন।

মাগুরায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স বাহিনীর স্টেশন অফিসার মাছুদুর রহমান জানান, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা ক্রেন দিয়ে বাসটিকে টেনে পানি থেকে উপরে তোলেন। এ সময় বাসের ভেতর ও নিচে চাপাপড়া অবস্থায় চারজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহতদের মধ্যে দু’জন নারী ও দু’জন পুরুষ।

শালিখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবুর রহমান জানান, নিহতদের মরদেহ মাগুরা ২৫০-শয্যা হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। আহতরা বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় শালিখা থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।