মামলা না হওয়ায় আটক ডঃ সাইদুজ্জামানকে অব্যাহতি

বগুড়ায় লিখিত অভিযোগের অভাবে আটক ডঃ সাইদুজ্জামানকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে রাতভর চিকিৎসকের পক্ষে তদবির চলার পর টনসিল অপারেশন করাতে গিয়ে শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় আটক চিকিৎসক সাইদুজ্জামানকে থানা থেকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ।

আজ (শুক্রবার) বেলা ১২টার দিকে থানা থেকে তাদেরকে ছেড়ে দেয়া হয়। মৃত শিশু তাওহিদ হোসেন (৯) এর বাবা ফিরোজুল ইসলাম আটককৃত চিকিৎসকের নামে কোন অভিযোগ নাই মর্মে থানায় লিখিত মুচলিকা দাখিল করেন। এ কারণে থানায় আটক বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক নাক, কান ও গলা ডাঃ সাইদুজ্জামানের বিরুদ্ধে পুলিশ আইনগত কোন ব্যবস্থা নিতে পারেননি।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার বগুড়ায় বেসরকারি হাসপাতাল ডক্টরস ক্লিনিক ইউনিট ২ তে ভুল চিকিৎসায় স্কুলছাত্রের মৃত্যুর অভিযোগে, অভিযুক্ত চিকিৎসক ডাঃ সাইদুজ্জামানকে আটক করা হয়। বৃহস্পতিবার রাত ১০টায় শহরের ঠনঠনিয়া এলাকায় ডক্টরস (ইউনিট ২) ক্লিনিকে তাওহিদ হাসান নামের ওই শিশুর টনসিলে অস্ত্রোপচার করার তিন ঘন্টা পর তাকে মৃত ঘোষণা করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ভুল চিকিৎসায় শিশুটির মৃত্যু হয়েছে এমন অভিযোগে স্বজনদের বিক্ষোভের মুখে রাতে পুলিশ ক্লিনিকটির চিকিৎসক ডাঃ সাইদুজ্জামানকে আটক করে।

শুক্রবার তাওহিদের বাবা থানায় মুচলিকা দিয়ে ছেলের মৃতদেহ নিয়ে বাড়িতে চলে যান। মৃত তাওহীদের বাবা ফিরোজুল ইসলাম লিখিত আবেদনে উল্লেখ করেন তার ছেলের মৃত্যুর ঘটনায় আটক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে তিনি মামলা করবেন না। এ কারণে চিকিৎসককে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

 

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি

You might also like