মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রীর সঙ্গে নবনিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনারের সাক্ষাৎ

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন ঢাকায় নবনিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার প্রণয় ভার্মা।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রীর দফতরে সাক্ষাৎ করেছেন তিনি।

মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মন্ত্রী এ সময় ভারতীয় হাইকমিশনারকে বাংলাদেশে স্বাগত জানান। তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে ভারতীয় সরকার এবং জনগণের সহায়তার কথা কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করেন। এসময় বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ এবং দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়।

আলোচনাকালে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ভারত সরকারের আমন্ত্রণে ৩০ জন বীর মুক্তিযোদ্ধার ভারত সফর এবং বাংলাদেশ সরকারের আমন্ত্রণে মুক্তিযুদ্ধকালীন ভারতীয় মিত্র বাহিনীর সদস্যদের বাংলাদেশ সফরের অগ্রগতি বিষয়ে একে অপরকে অবগত করেন।

মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় গঠিত মুজিবনগর সরকারের স্মৃতি বিজড়িত কলকাতার থিয়েটার রোডের ৮ নম্বর বাড়ি বাংলাদেশের কাছে হস্তান্তরের অনুরোধ জানানো হয়। এছাড়া বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের বৃত্তি, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা, মুজিবনগরে স্বাধীনতা সড়ক নির্মাণ বিষয়ে আলোচনা হয়। মহান মুক্তিযুদ্ধে জীবনদানকারী ভারতের মিত্রবাহিনীর স্মরণে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে স্মৃতিসৌধ নির্মাণের কথা মন্ত্রী হাইকমিশনারকে উল্লেখ করেন।

ভারতীয় হাইকমিশনার বলেন, ‘বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক পরীক্ষিত। মিত্রবাহিনীর সদস্যদের স্মরণে স্মৃতিসৌধ নির্মাণ বাংলাদেশ-ভারত বন্ধুত্বকে আরও সুদৃঢ় করবে।’ আগামী ৬ ডিসেম্বর (ভারত কর্তৃক বাংলাদেশকে স্বীকৃতি প্রদান দিবসে) ভারতীয় হাইকমিশন ‘মৈত্রী দিবস’ আয়োজন করবে বলে তিনি জানান এবং একই সঙ্গে এ আয়োজনে মন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানান।

ভারতীয় হাইকমিশনার এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অভূতপূর্ণ উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

মন্ত্রী ভারতের হাইকমিশনারকে জাতীয় স্মৃতিসৌধের রেপ্লিকা এবং মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক বই উপহার দেন। এসময় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব খাজা মিয়াসহ মন্ত্রণলায় ও ভারতীয় হাইকমিশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

You might also like