মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত তালিকা ‘রাজাকারের’ নয় : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

১৬৫

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে যে রাজাকারের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে তা আসলে ‘রাজাকারের তালিকা’ নয় বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

আজ (বুধবার) বিকেলে সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের নিজ কক্ষে সাংবাদিকদের কাছে এ মন্তব্য করেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত আলোচিত রাজাকারের তালিকা প্রকৃতপক্ষে কোনও রাজাকার, আলবদর বা আল শামসের তালিকা নয়। এটা ছিলো ১৯৭২ থেকে ১৯৭৪ সালে দালাল আইনে দায়ের হওয়া মামলার আসামিদের তালিকা।

তিনি বলেন, এই তালিকা থেকে ৯৯৬ জনের নাম বাদ দেয়া হয়েছিলো। অথচ মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয় পুরো তালিকাটাই রাজাকারের তালিকা হিসেবে প্রকাশ করে দিয়েছে।

মহান বিজয় দিবসের আগের দিন রোববার একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে বিরোধিতাকারী ১০ হাজার ৭৮৯ রাজাকারের তালিকা প্রকাশ করে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়। প্রকাশিত তালিকায় স্বীকৃত অনেক মুক্তিযোদ্ধার নাম রাজাকার হিসেবে ছাপা হয়। এ নিয়ে দেশজুড়ে চলছে নানা সমালোচনা।

রাজাকারের তালিকা নিয়ে এরই মধ্যে ভিন্নভিন্ন বক্তব্য এসেছে সরকারের পক্ষ থেকে। মুক্তিযোদ্ধা, সুশীল সমাজ, বিএনপিসহ নানা রাজনৈতিক দলও এ নিয়ে মন্তব্য করেছে।

প্রকাশিত রাজাকারের তালিকায় অনেক মুক্তিযোদ্ধার নাম চলে আসায় দুঃখ প্রকাশ করে মঙ্গলবার মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, ভুলের পরিমাণ বেশি হলে তালিকা প্রত্যাহার করা হবে। আর ভুলভ্রান্তির পরিমাণ কম হলে ভুলবশত যাদের নাম তালিকায় এসেছে, সে নামগুলো প্রত্যাহার করা হবে।

এর আগে আজ সকালে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত রাজাকারের তালিকা যাচাই-বাছাই ও সংশোধন করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

অনলাইন নিউজ ডেস্ক/বিজয় টিভি

You might also like