মেহেরপুরে হত্যা মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন

মেহেরপুরের মুজিবনগরের বাগোয়ান গ্রামে চা দোকানি লিয়াকত আলী হত্যা মামলায় তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও তিনজনকে এক বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রোববার সকাল ১১টার দিকে মেহেরপুর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রিপতি কুমার বিশ্বাস এক জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় দেন।

এছাড়াও বাকি চার আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

চাঞ্চল্যকর এ মামলাটির বিচার চলাকালিন আসামিরা সবাই আদালতে হাজির ছিলেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ৮ জানুয়ারি নিহতের ভাই রিপন হোসেন মামলার আসামি জামাত আলী ওরফে খোকার কাছ থেকে পাওনা ৪০০ টাকা চাইতে গেলে তাদের মধ্যে বাগ-বিতণ্ডা হয়। বিকেলে রিপন তার বড় ভাই লিয়াকত আলীর চায়ের দোকানে বসেছিল। এসময় জামাত আলীসহ আরও কয়েজন রিপনকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার বড় ভাই লিয়াকত আলীর দোকানে যায়। এসময় তারা ধারালো অস্ত্র রামদা, হাসুয়া রড নিয়ে হামলা করলে রিপন দোকানের ভেতরে পালিয়ে যায়। একপর্যায়ে লিয়াকত আলী হামলাকারীদের আটকাতে গেলে তারা প্রকাশ্যে কুপিয়ে তাকে হত্যা করে চলে যায়।

এ হত্যার ঘটনায় নিহতের ছেলে মোখলেছুর রহমান বাদী হয়ে মুজিবনগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে ফেব্রুয়ারি মাসের ২৫ তারিখ মুজিবনগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মতিউর রহমান মামলার চার্জশিট দেন।

সাক্ষ্যপ্রমাণ শেষে রোববার এ মামলায় রায় ঘোষণা করেন বিচারক।