মোটরসাইকেলে গাড়ির ধাক্কা, ছাত্রলীগ নেতাসহ ৩ যুবকের মৃত্যু

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলায় অজ্ঞাত গাড়ির ধাক্কায় প্রাণ হারিয়েছেন মোটরসাইকেলে থাকা ছাত্রলীগ নেতাসহ তিন তরুণ।

বুধবার (৩০ মার্চ) মধ্যরাতে উপজেলার আলমনগর বাজারের সামনে নবাবগঞ্জ-কাঁচদাহ আঞ্চলিক সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন নারায়ণপুর গ্রামের ইয়াসিন আলীর ছেলে ও বিনোদনগর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক কিবরিয়া ইসলাম (৩০), উত্তর শ্যামপুর গ্রামের মো. রবিউল ইসলামের ছেলে রিমন ইসলাম (২২) ও উপজেলার কাঁচদহ গ্রামের মো. জাহিদুল ইসলামের ছেলে সাব্বির হোসেন (২৩)।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রাতে মোটরসাইকেলে করে কিবরিয়া, রিমন ও সাব্বির নবাবগঞ্জ বাজার থেকে কাঁচদহ বাজারে যাচ্ছিলেন। পথে আলমনগর বাজারের সামনে পৌঁছালে একটি গাড়ি তাদের মোটরসাইকেলের পেছনে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজনের মৃত্যু হয়।

নিহত সাব্বিরের চাচাতো ভাই বুলবুল আহমেদ জানান, কাঁচদহ এলাকায় ইজারা নিয়ে নদী থেকে বালু তুলে বিক্রি করেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শাহিনুর রহমান সবুজ। কিবরিয়া, রিমন ও সাব্বির তার বালু মহালের টাকা কালেকশনের দায়িত্বে ছিলেন। প্রতিদিনের মতো বুধবার রাতেও তারা তিনজন বালু বিক্রির টাকা আনাতে নবাবগঞ্জে গিয়েছিলেন।

দুর্ঘটনার বিষয়ে নবাবগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তাওহিদ জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে রাত ৩টার দিকে নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। স্বজনদের কোনো অভিযোগ না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই নিহতদের মরদেহ তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ঘাতক গাড়িটি শনাক্ত করে জব্দ করার চেষ্টা চলছে। এ ব্যাপারে নবাবগঞ্জ থানায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা করা হয়েছে।

%d bloggers like this: