রাউজানে ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে বাল্যবিবাহ বন্ধ করলেন ইউএনও

৭৮

চট্টগ্রামের রাউজানে জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে পুলিশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধির সহায়তায় ৮ম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিক্ষার্থীর বাল্যবিবাহ বন্ধ করে কিশোরীর পাড়ালেখার দায়িত্ব নিলেন রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জোনায়েদ কবির সোহাগ।

গতরাত ১২টায় গায়ে হলুদের সাজে সজ্জ্বিত ছাত্রীর বাল্যবিবাহটি বন্ধ করেন তিনি।

জানা যায়, রাউজান ছালামত উল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর ছাত্রীর সাথে রাউজান পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের খোরশেদ কলোনিতে বসবাসকারী মো. আব্দুল জব্বারের ছেলে শফিকুল ইসলামের বিয়ে ঠিক হয়।

গতকাল গায়ে হলুদ শেষে আজ শুক্রবার বিবাহ অনুষ্ঠানের কথা ছিল। রাত ১১টায় ৯৯৯ এ ফোন পেয়ে রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল হারুনসহ একদল পুলিশ এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে জন্ম নিবন্ধন সনদে মেয়ের ১৩ বছর বয়সের প্রমাণ পেলে তারা অভিভাবকদের বাল্যবিবাহের কুফল সম্পর্কে বুঝান।

অভিভাকরা প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে না দেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানান। পরে পুলিশ বর ও বরের আত্মীয়কে থানায় নিয়ে যান। মুচলেখা নিয়ে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়। রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জোনায়েদ কবির সোহাগ জানান, ৯৯৯ এ ফোন পেয়ে পুলিশ বিষয়টি আমাকে অবহিত করলে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয়। মেয়ের পরিবার আর্থিকভাবে অস্বচ্চল হওয়ায় মেয়েটির পড়ালেখার দায়িত্ব নেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

নিউজ ডেস্ক/বিজয় টিভি

You might also like