রাজধানীতে অগ্নিকান্ডে শিশুসহ ৩ জনের মৃত্যু

৯৮

রাজধানীর মগবাজার নিউ ইস্কাটনে দিলু রোডের একটি পাঁচতলা ভবনের গ্যারেজে আগুনে নারী ও শিশুসহ একই পরিবারের তিনজন মারা গেছে। এখনও পর্যন্ত নিহতদের নাম জানাতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস। বর্তমানে আগুন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

এঘটনায় ১৫জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৬জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকী ৯জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

আহত শহিদুল ইসলাম (৪০) ও তার স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস (৩৮) দগ্ধ হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন আছেন। এছাড়াও ধোঁয়ায় অসুস্থ হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছে একই পরিবারের চার সদস্য। তারা হলেন- মনির হোসেন, সুমাইয়া আক্তার, মাহাদী হাসান ও মাহমুদুল হাসান। হতাহতরা ওই ভবনের বাসিন্দা।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ৮টি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে এক ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে ভোর সাড়ে ৫টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

আজ বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে মগবাজারের দিলু রোডে ৪৫/এ নম্বর বাড়িতে আগুন লাগে।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের সদরদপ্তরের কন্ট্রোল রুমের অপারেটর রাসেল শিকদার বাসসকে অগ্নিকান্ডের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, দিলু রোডে পাঁচ তলা ভবনের নিচ তলার গ্যারেজে ভোর ৪টা ৩২ মিনিটে আগুনের সূত্রপাত হয়। ৮টি ইউনিট ১ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে সাড়ে ৫টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। সেখান থেকে তিন জনের দগ্ধ মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহ গুলো ঢামেক মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তিনি জানান, অগ্নিকান্ডে ওই গ্যারেজের ৫টি প্রাইভেটকার ও ২টি মোটরসাইকেল পুড়ে গেছে। তাৎক্ষনিক ভাবে আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমান জানাতে পারেননি তিনি।

তিনি বলেন, আগুনের কারণ জানতে তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষ হলে তা বলা যাবে।

আজ বৃহস্পতিবার ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের পরিদর্শক মো: বাচচু মিয়া বাসসকে জানান, আহত শহিদুলের শরীরের ৪৩ শতাংশ এবং তার স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌসের শরীরের ৯৫ শতাংশ পুড়ে গেেছ। আগুনের ধোঁয়ায় অসুস্থ ৪ জনকে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

অনলাইন নিউজ ডেস্ক/বিজয় টিভি

You might also like