রাজধানীর জলাবদ্ধতা নিরসনে খালগুলো দখলমুক্ত করে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করতে হবে : তাজুল

৫১

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, আসন্ন বর্ষা মৌসুমে রাজধানীর জলাবদ্ধতা নিরসনে দখল হওয়া খালগুলো পুনরুদ্ধার করে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করতে হবে।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর জলাবদ্ধ নিরসন ও ওয়াসার কাছ থেকে খাল হস্তান্তরের সময় সিটি কর্পোরেশনকে দেওয়া কর্মপরিকল্পনার অগ্রগতিএবং কল্যাণপুর পাম্পের রিটেনশন পন্ডের জন্য অধিগ্রহন করা জমি পরিদর্শন কালে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

রিটেনশনপন্ডের জন্য নির্ধারিত জায়গা দখল হওয়ার কথা উল্লেখ করে মো. তাজুল ইসলাম বলেন, দখল করে যে কোন অবকাঠামোই নির্মাণ করা হোক এবং যারাই দখল করুক না কেন, তা দখলমুক্ত করে ওয়াটারপন্ড নির্মাণ করার ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

তিনি বলেন, দখলমুক্ত করার অভিযানকালে প্রশাসন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও সাধারণ জনগণের সহযোগিতা গ্রহণ করতে হবে।

সিটি কর্পোরেশনগুলোতে করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারের দেওয়া অর্থ ও কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নে নেওয়া কার্যক্রম সম্পর্কে তিনি অবহিত হন এবং নিজ নিজ এলাকাকে ছোট ছোটসাব জোনে ভাগ করে সকল শ্রেনী-পেশার মানুষকে সম্পৃক্ত করতে তিনি সকল কাউন্সিলরদের প্রতিআহবানজানান।

তিনি বলেন, উত্তর সিটি কর্পোরেশনে নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসনের লক্ষে পাম্পরিটেনশনপন্ডের জন্য ১৭১ একর জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে। কিন্তু অধিগ্রহণ করা এই জায়গায় অনেকেই দখল করে বিভিন্ন অবকাঠামো নির্মাণ করেছে।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, এই সকল অবৈধ অবকাঠামো উচ্ছেদ করে পানি নিষ্কাসনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ জন্য যা যা করার দরকার তা করা হবে।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের অধীনে থাকা খালগুলোর দুইপাড় দখল করে সংকুচিত করা হয়েছে। খালের দখলবন্ধ করতে সীমানা নির্ধারণের জন্য সীমানা পিলার স্থাপনের ব্যবস্থা নিতে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

You might also like