রাজবাড়ীতে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা, স্বামী আটক

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার মাছপাড়া ইউনিয়নের কালীনগর গ্রামে স্বামী রুবেল সরদারের হাতে খুন হয়েছেন স্ত্রী লিপি বেগম (২৯)। রুবেল একই গ্রামের ওকুল সরদারের ছেলে। এ ঘটনায় স্থানীয়রা রুবেল সরদারকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন। পুলিশ হত্যাকারী সন্দেহে রুবেলকে আটক দেখিয়েছেন।

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রুবেল সরদারের নিজ ঘরে হাসুয়া দিয়ে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে বলে জানা গেছে। রুবেল মাদকাসক্ত ছিলেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকালে রুবেল তার স্ত্রীকে নিয়ে এলাকায় ঘুরে বেড়িয়েছেন। ঘোরা শেষ করে নিজ ঘরে হাসুয়া দিয়ে তিনি তার স্ত্রীকে গলা কেটে খুন করেছেন। তিনি মাঝে মাঝে পাগলামি করতেন বলে স্থানীয়রা জানান।

মাছপাড়া ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মোন্তাজ উদ্দীন খান বলেন, এলাকায় মাদকাসক্ত ও মানসিক রোগী হিসেবে পরিচিত ছিলো রুবেল। সকাল সাড়ে ৭টার কিছুক্ষণ পরে সে তার স্ত্রীকে হত্যা করেছে। রুবেলের তিনটি সন্তান রয়েছে। লিপির বাবার বাড়ি একই উপজেলার সাজুরিয়া গ্রামে।

পাংশা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.মাসুদুর রহমান বলেন, পারিবারিক অশান্তির কারণে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটতে পারে। রুবেলের বিরুদ্ধে গাঁজা সেবনের অভিযোগ রয়েছে।

You might also like