রাজশাহীতে প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ: নারায়ণগঞ্জ থেকে আটক দুই

রাজশাহীর পুঠিয়ায় রাতের আঁধারে ভ্যান থেকে নামিয়ে নিয়ে প্রতিবন্ধী স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ মামলার পলাতক দুই আসামিকে ঢাকার নারায়ণগঞ্জ থেকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

সোমবার (১৮ এপ্রিল) গভীর রাতে যৌথ অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব-৫ ও র‌্যাব-১১।

পরে র‌্যাব সদস্যরা নারায়ণগঞ্জ সদরের খানপুর এলাকা থেকে তাদের আটক করে। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) তাদের রাজশাহী নিয়ে যাওয়া হয়েছে। রাতে র‌্যাব-৫ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর মো. নাজমুস সাকিব এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আটকরা হলেন- রাজশাহীর পুঠিয়ার কার্তিকপাড়া গ্রামের নমীর উদ্দিনের ছেলে মো. রাকিব (২৫) ও একই উপজেলার কাজুপাড়া এলাকার মৃত আবু সাইদের ছেলে মো. মিজান (৩০)। তাদের র‌্যাব কার্যালয়ে রাখা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বুধবার (২০ এপ্রিল) সকালে তাদের থানায় সোপর্দ করার কথা রয়েছে।

র‌্যাব-৫ জানায়- এ ঘটনায় পুঠিয়া থানায় ধর্ষণ মামলা হয়েছিল। পুলিশের পাশাপাশি এই মামলাটির ছায়া তদন্ত করছিল রাজশাহী র‌্যাব-৫ এর মোল্লাপাড়া ক্যাম্প। একপর্যায়ে দুই আসামির অবস্থান নিশ্চিত হয় র‌্যাব। পরে তারা নারায়ণগঞ্জ থেকে ওই দুজনকে আটক করে। আটকের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা এ ঘটনায় নিজেরা জড়িত বলে স্বীকার করে। পরে তাদের রাজশাহী নিয়ে যাওয়া হয়।

এর আগে বুধবার (৬ এপ্রিল) ইফতারের পর পুঠিয়ার আত্মীয়ের বাড়ি থেকে ভ্যানে করে বাগমারা নিজ গ্রামে ফিরছিলেন ওই প্রতিবন্ধী স্কুলছাত্রী। ওই ভ্যানে আরও যাত্রী ছিলেন। তারা রাত ৮টার দিকে পুঠিয়ার কাচুপাড়া মাঠের কাছে পৌঁছালে ৫/৬ জন যুবক ধারালো অস্ত্রের মুখে তাদের ভ্যান থামায়। এ সময় তারা ভ্যানযাত্রীদের টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। পরে সবাইকে তাড়িয়ে দিয়ে অস্ত্রের মুখে ওই স্কুলছাত্রীকে মাঠের পাশের একটি কলা বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এ ঘটনায় পরদিন সকালে তার মা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। পরে র‌্যাব সদস্যরা যৌথ অভিযান পরিচালনা করে নারায়ণগঞ্জ থেকে তাদের আটক করে।

You might also like
%d bloggers like this: