রাশিয়ার বিরুদ্ধে আরো নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউ

রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, জি-সেভেন জোট ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।
রাশিয়া উত্তর ইউক্রেনের বুচা শহরে বেসামরিক নাগরিক হত্যাকাণ্ডের প্রতিক্রিয়ায় এ পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে পশ্চিমা দেশগুলো। আজ বুধবার হোয়াইট হাউস এ তথ্য জানিয়েছে। খবর রয়টার্স।

হোয়াইট হাউস জানায়, রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন করে সমন্বিত পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে ওয়াশিংটন, জি৭ ও ইইউ। এসব নিষেধাজ্ঞার মধ্যে রয়েছে রাশিয়ায় নতুন বিনিয়োগ নিষিদ্ধ করা, দেশটির ব্যাংক ও কর্মকর্তাদের নিষিদ্ধ করা। এছাড়া রাশিয়া থেকে কয়লা কেনা ও ইইউ বন্দরে রাশিয়ার জাহাজগুলো প্রবেশেও নিষিদ্ধ করবে তারা।

ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লিয়েন জানান, তারা রাশিয়ার জ্বালানি তেল আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা দেয়ার জন্যও কাজ করছেন। তবে ইউরোপের প্রাকৃতিক গ্যাসের প্রায় এক তৃতীয়াংশ চাহিদা মেটায় রাশিয়া। যদিও রাশিয়ার ওপর এসব নিষেধাজ্ঞার অর্থনৈতিক প্রভাব সম্পর্কে সতর্ক রয়েছে তারা।

কিয়েভ ও আশপাশের এলাকা থেকে সেনা প্রত্যাহারের পর বুচায় রুশ ধ্বংসযজ্ঞের চিত্র স্পষ্ট হতে থাকে। এ দৃশ্যকে যুদ্ধাপরাধ হিসেবে বর্ণনা করে শাস্তি দাবি করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। যদিও ইউক্রেনের এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে রাশিয়া। ক্রেমলিন বলছে, বুচায় বেসামরিক নাগরিকদের লক্ষ্য করে কোনো হামলা হয়নি।

এদিকে গতকাল মঙ্গলবার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে এক আবেগপূর্ণ ভাষণ দিয়েছেন ভলোদিমির জেলেনস্কি। এসময় তিনি বলেন, রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপের সময় অবশ্যই দখলদার বাহিনীর যুদ্ধাপরাধের বিষয়টি গুরুত্ব দিতে হবে।

You might also like
%d bloggers like this: