রাসেল তাণ্ডবে লণ্ডভণ্ড পাঞ্জাব!

লক্ষ্যটা যে খুব বেশি বড় ছিল না, তা কিন্তু নয়। তবে এই ১৩৮ রান তাড়া করতে নেমেই দলীয় পঞ্চাশ পেরোতেই ৪ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে কলকাতা নাইট রাইডার্স। জেঁকে বসে পরাজয়ের আশঙ্কা। ঠিক তখনই দৃশ্যপটে হাজির আন্দ্রে রাসেল। এসেই তাণ্ডব চালালেন পাঞ্জাব কিংসের বোলারদের উপর। পাঞ্জাবকে রীতিমতো উড়িয়েই দিলেন ক্যারিবীয় এই অলরাউন্ডার।

মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে উমেশ যাদবের বোলিং তোপে ১৮.২ ওভারে মাত্র ১৩৭ রানেই অলআউট হয়ে যায় পাঞ্জাব। জবাবে ৫১ রানে ৪ উইকেট হারালেও, শেষ পর্যন্ত রাসেল তাণ্ডবে ৩৩ বল আগেই ম্যাচ জিতে নেয় কলকাতা।

দুই ওপেনার ভেংকটেশ আইয়ার ও অজিঙ্কা রাহানের বিদায়ের পর ব্যাট হাতে ঝড় তুলেছিলেন অধিনায়ক শ্রেয়াস আইয়ার। তার ব্যাট থেকে আসে ১৫ বলে ২৬ রান। ইনিংসের সপ্তম ওভারে শ্রেয়াস ফেরার পর শূন্য রানে আউট হন নীতিশ রানা।

ফলে ৭ ওভার শেষে কলকাতার সংগ্রহ দাঁড়ায় ৪ উইকেটে ৫১ রান। সেখান থেকে পরের ৭.৩ ওভারেই ম্যাচ জিতে নেয় কলকাতা। ২ টি চার ও ৮ টি ছয়ের মারে মাত্র ৩১ বলে ৭০ রান করেন রাসেল। অন্যদিকে ২৩ বলে ২৪ রান করে অপরাজিত থাকেন স্যাম বিলিংস।

অবশ্য এমন ঝড়ো ব্যাটিংয়ের পরও ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতেননি রাসেল। কেননা ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ক্যারিয়ারসেরা বোলিং করে পাঞ্জাবকে ধসিয়ে দিয়েছিলেন ডানহাতি পেসার উমেশ যাদব। তিনি নিজের ৪ ওভারে মাত্র ২৩ রান দিয়ে নিয়েছেন ৪ টি উইকেট। তাই পাঞ্জাবকে ধসিয়ে দেওয়া উমেশের হাতেই উঠেছে ম্যাচসেরার পুরস্কার।

You might also like
%d bloggers like this: