রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্সের বিরুদ্ধে ফরাসি আইনজীবীর লিগ্যাল নোটিশ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে অসত্য প্রতিবেদন প্রকাশ করায় রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্স-আরএসএফ এর বিরুদ্ধে লিগ্যাল নোটিশ দিয়েছেন ফরাসি আইনজীবী Madou Kone।

গত ২ জুলাই আরএসএফ প্রকাশিত ‘ওল্ড টাইর‍্যান্টস, টু উইমেন এন্ড আ ইউরোপিয়ান: আরএসএফ আনভেইলস ইটস ২০২১ এডিশন অভ প্রিডেটরস অভ প্রেস ফ্রিডম’ নিবন্ধে শেখ হাসিনা এবং বাংলাদেশ নিয়ে অসত্য বিবরণ দেয়ায় কেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে না ১৫ দিনের মধ্যে এর জবাব দিতে বলা হয়েছে এ নোটিশে। বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত চার ফরাসি নাগরিক আবুল কাশেম, মজিবুর রহমান, মনজুরুল হাসান চৌধুরী এবং কয়েস দিলওয়ার হুসাইনের পক্ষে প্যারিসের আইনজীবী গতকাল এই নোটিশ জারি করেন।

ফ্রান্সে অবস্থিত সংস্থা আরএসএফ’র প্রতিবেদনে বাংলাদেশ অংশের ত্রুটিগুলোর বিরুদ্ধে আইনগত নানাদিক উল্লেখ করে নোটিশে বলা হয়, ‘খোদ ফ্রান্সের আইন অনুযায়ীই এটি অপরাধ কারণ সেদেশে ১৮৮১ সালের ২৯ জুলাই প্রণীত গণমাধ্যম স্বাধীনতা বিষয়ক আইন অনুসারে কোনো ব্যক্তি সম্পর্কে অসৌজন্যমূলক কোনো মন্তব্য জনসম্মুখে প্রকাশ নিষিদ্ধ।’

একই আইনের ২৯ ধারায় এ ধরনের কোনো বিবরণ বিবৃতি, হাতে লেখা, ছাপা, পোস্টার-প্ল্যাকার্ড বা অন্য কোনো আকারে প্রকাশ করাকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলা হয়েছে।

প্যারিসে ইস্যু করা এই লিগ্যাল নোটিশে এদেশে সাংবাদিকদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) এবং ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) থেকে ঐ প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে দেয়া প্রতিবাদলিপিরও উল্লেখ রয়েছে।

উল্লেখ্য, রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্স (ফরাসিতে রিপোর্টার্স স্যান্স ফ্রন্টিয়ারস-আরএসএফ) এর এই প্রতিবেদন প্রকাশের পর তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদের নির্দেশে গত ৯ জুলাই তথ্য অধিদফতরের প্রধান তথ্য অফিসার আরএসএফ বরাবর প্রতিবাদলিপি পাঠান। সেখানে বাংলাদেশ নিয়ে অসত্য প্রতিবেদনটি অবলেপন করা অন্যথায় আইনি ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলা হয়েছিল।