শতভাগ সচ্ছতার সঙ্গে সব প্রকল্পের নির্মাণ কাজ শেষ করা হবে : সেতুমন্ত্রী

শতভাগ সচ্ছতার সঙ্গে সব প্রকল্পের নির্মাণ কাজ শেষ করা হবে। এতে কোনো নয়-ছয় করার সুযোগ নেই বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শনিবার সকালে ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে (DAEEP) নির্মাণ প্রকল্পের স্ট্যাটিক লোড টেস্ট এর পাইলট পাইল বোরিং কাজের উদ্বোধন শেষে এসব কথা বলেন তিনি।

এ দিন সকাল ১১টায় তুরাগ থানাধীন ধউর এলাকায় সবুজ নিশান উড়িয়ে পাইল বোরিং কাজের উদ্বোধন করেন ওবায়দুল কাদের। এ সময় তিনি বলেন, এই প্রকল্পের কাজ করছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না ন্যাশনাল মেশিনারি ইমপোর্ট অ্যান্ড এক্সপোর্ট কর্পোরেশন। এখানে কোনো ধরনের নয়-ছয়ের সুযোগ নেই।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী ২ সপ্তাহের মধ্যে এ প্রকল্পের জন্য লোনচুক্তি সম্পন্ন হবে। আমাদের ফান্ডিং এর কোন সমস্যা নেই। আগামী বছরই চট্টগ্রামে নির্মীয়মাণ কর্ণফুলী টানেলের ৭০ শতাংশ কাজ শেষ হবে। এ ছাড়া মেট্রোরেল প্রকল্প আগামী বছর সমাপ্ত হওয়ার কথা।

তিনি বলেন, আগামী বছরের জুনে উদ্বোধন করা হবে পদ্মা সেতু। প্রধানমন্ত্রী এটি উদ্বোধন করবেন। বঙ্গবন্ধু কর্ণফুলী টানেলও চালু হবে ২০২২ সালে।

এক্সপ্রেসওয়ে নিয়ে মন্ত্রী বলেন, শুরুতেই হোঁচট খাওয়ার কোন কারণ নেই। বর্তমানে যে রাস্তা আছে এইখানে ভোগান্তি যেন না হয়, রাস্তা যেভাবে আছে থাকুক। অনেক মানুষ বিকল্প পথ হিসেবে এই পথ ব্যবহার করে। এখানে মানুষের যেন ভোগান্তি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আমি ভোগান্তির বিষয় এড়িয়ে চলতে বলব। রাস্তা যেন ব্যবহারের উপযোগী থাকে। ক্যায়োটিক পরিস্থিতি যেন সৃষ্টি না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখবেন।

এ প্রকল্পের মোট ব্যয় ১৬ হাজার ৯০১ দশমিক ৩২ কোটি টাকা। যার মধ্যে বাংলাদেশ সরকার বহন করবে ৫ হাজার ৯৫১ দশমিক ৪২ কোটি টাকা এবং বিদেশি চীন সরকার (G 2 G) বহন করবে ১০ হাজার ৯৪৯ দশমিক ৯১ কোটি টাকা। এক্সিম ব্যাংক অফ চায়না আর্থিক সহায়তা দিবে। লোন চুক্তি সম্পন্ন হবে আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে। আজ থেকেই এ প্রকল্পের নির্মাণকাজ শুরু বলা যায়।

You might also like