শেখ হাসিনার প্রশংসায় ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর রাষ্ট্রপতি

কানাডায় নিযুক্ত হাইকমিশনার ড. খলিলুর রহমান পোর্ট অব স্পেনে ত্রিনিদাদ ও টোবাগো প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রপতি ও সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান পলা মে উইকসের কাছে সেদেশে বাংলাদেশের অনাবাসিক হাইকমিশনার হিসেবে তার পরিচয়পত্র পেশ করেছেন। মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) অটোয়ার বাংলাদেশ হাইকমিশন এ তথ্য জানায়।

একইদিনে পরিচয়পত্র দেওয়ার প্রাক্কালে হাইকমিশনার সেদেশের পররাষ্ট্র ও কারিকম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ড. আমেরি ব্রাউনের সঙ্গে এক সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন এবং পরিচয়পত্রের অনুলিপি হস্তান্তর করেন। এছাড়া তিনি একই মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী সচিবের সঙ্গেও দেখা করেন। পরে তিনি সস্ত্রীক সেদেশের রাষ্ট্রাচার প্রধানের সঙ্গে সুসজ্জিত অশ্বরোহী নিরাপত্তা বাহিনী পরিবেষ্টিত বিশেষ মটর শোভাযাত্রাসহ পররাষ্ট্র ও কারিকম বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ে পৌঁছান।

তিনি রাষ্ট্রপতির কাছে যথা নিয়মে তার পরিচয়পত্র দেন। সেখানে হাইকমিশনারকে রাষ্ট্রীয় গার্ড অব অনার দেওয়া হয়।

পরিচয়পত্র দেওয়া শেষে হাইকমিশনার ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর রাষ্ট্রপতির সঙ্গে এক দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় মিলিত হন। নিয়মিত শুভেচ্ছা বিনিময়ের শেষে রাষ্ট্রপতি ২০০৯ সালে কমনওয়েলথ সম্মেলন উপলক্ষে সেদেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি সফরের স্মৃতিচারণ করে প্রধানমন্ত্রীর ভূয়সী প্রসংশা করেন। তিনি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর গতিশীল ও দূরদর্শী নেতৃত্ব এবং তার সময়কালে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব চলমান উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক অগ্রগতির ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি উল্লেখ করেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বল্প আয়ের দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে।