সংসদে মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ বিল, ২০২১সহ তিনটি বিল উত্থাপন

১৭০

জাতীয় সংসদে আজ শনিবার মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ বিল-২০২১সহ তিনটি বিল উত্থাপন করা হয়েছে।

উত্থাপিত অন্য বিল দু’টি হচ্ছে, বাংলাদেশ ট্যুর অপারেটর ও ট্যুর গাইড নিবন্ধন ও পরিচালনা বিল-২০২১ এবং শিশু দিবাযত্ন কেন্দ্র বিল-২০২১।

বিল তিনটি উত্থাপন করেন যথাক্রমে নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী এবং মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বেগম ফজিলাতুন্নেছা।

মংলা পোর্ট অথরিটি অধ্যাদেশ রহিত করে মংলা বন্দরের কার্যক্রম আরো গতিশীল এবং কার্যকরভাবে পরিচালনা ও অন্যান্য আনুসাঙ্গিক বিষয়ে সুনির্দিষ্ট বিধানের প্রস্তাব করে মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ বিল-২০২১ উত্থাপন করা হয়েছে। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে আগামী ২ মাসের মধ্যে সংসদে রিপোর্ট প্রদানের জন্য বিলটি নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে প্রেরণ করা হয়।

দেশের পর্যটন শিল্পের বিকাশ ও উন্নয়নে এর কার্যকর পরিচালনায় সুনির্দিষ্ট বিধানের প্রস্তাব করে বাংলাদেশ ট্যুর অপারেটর ও ট্যুর গাইড নিবন্ধন ও পরিচালনা বিল-২০২১ উত্থাপন করা হয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে আগামী এক মাসের মধ্যে সংসদে রিপোর্ট প্রদানের জন্য বিলটি বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে প্রেরণ করা হয়।

শিশুদের দিবাকালীন যত্ন, পরিচর্যায় সরকারি, আধাসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে শিশু দিবাযতœ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠাসহ এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট বিধানের প্রস্তাব করে শিশু দিবা যত্ন কেন্দ্র বিল-২০২১ উত্থাপন করা হয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে আগামী ২ মাসের মধ্যে সংসদে রিপোর্ট প্রদানের জন্য বিলটি মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে প্রেরণ করা হয়।

এছাড়া আজ সংসদে আয়োডিনযুক্ত লবন বিল-২০২১ এর ওপর শিল্প মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির রিপোর্ট উপস্থাপন করা হয়। পাশাপাশি দুর্নীতি দমন কমিশন এবং জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ২০১৯-২০ অর্থ বছরের বার্ষিক প্রতিবেদন পৃথকভাবে সংসদে উপস্থাপন করা হয়।

You might also like