সামুদ্রিক মৎস্য আইন, ২০১৯-এর খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন

বিদেশি মৎস্য নৌযান কর্তৃক মৎস্য আহরণ কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণে জেল-জরিমানার বিধান রেখে ‘সামুদ্রিক মৎস্য আইন, ২০১৯-এর খসড়ার চুড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

নতুন আইনে এ সংক্রান্ত অপরাধের জন্য অনধিক তিন বছরের কারাদন্ড বা অনধিক পাঁচ কোটি টাকা অর্থদন্ড অথবা বা উভয় দন্ড প্রদানের বিধান রাখা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আজ সকালে তাঁর তেজগাঁওস্থ কার্যালয়ে (পিএমও) অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন প্রদান করা হয়।

‘মন্ত্রিসভা বাংলাদেশের সীমানায় দেশি-বিদেশি মৎস্য নৌযান কর্তৃক মৎস্য আহরণ কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণে অনধিক তিন বছরের কারাদন্ড বা অনধিক পাঁচ কোটি টাকা অর্থদন্ড অথবা বা উভয় দন্ডের বিধান রেখে ‘সামুদ্রিক মৎস্য আইন, ২০১৯’এর খসড়ার চুড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে,’ বিকেলে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দোকার আনোয়ারুল ইসলাম একথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘নতুন আইনে ক্ষমতাপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে বাধা প্রদান, মৎস্য নৌযান, ইত্যাদির ক্ষতিসাধন, প্রমাণাদি ধ্বংস ইত্যাদি অপরাধে দন্ড যৌক্তিক পরিমানে বৃদ্ধি করে অনধিক দু’বছরের কারাদন্ড বা অপরাধ ভেদে ১০ লাখ টাকা এবং অনধিক ২৫ লাখ টাকা আর্থিক দন্ডের বিধান করা হয়েছে।’ অধ্যাদেশে শাস্তির মেয়াদ অনধিক ৩ বছর এবং জরিমানা ৫ হাজার টাকা থেকে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত ছিল।

You might also like