সারাদেশে কঠোর বিধিনিষেধ চলছে

১২৮

সারাদেশে সপ্তাহব্যাপী কঠোর বিধি-নিষেধ বৃহস্পতিবার (১জুলাই) থেকে শুরু হয়েছে। করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা থেকে শুরু হওয়া সপ্তাহব্যাপী কঠোর লকডাউন বাস্তবায়ন করতে মাঠে ব্যাপক তৎপর রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়কে চেকপোস্ট বসিয়ে যানবাহনে তল্লাশি ও পথচারীদের বাইরে বের হওয়ার কারণ জিজ্ঞাসা করছে পুলিশ।

অতিপ্রয়োজনীয় যানবাহন, রিকসা ও পণ্যবাহী গাড়ি ছাড়া সব ধরনের গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে। প্রয়োজন ছাড়া কাউকে রাস্তায় বের হতে দেখা যাচ্ছেনা

ঢাকা শহরসহ দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। প্রতিটি চেকপোস্টে ৮ থেকে ১২ জন পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন। তাদের মধ্যে ডিসি পর্যায়ের কর্মকর্তারাও  মাঠে থেকে লকডাউন বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন।

রাজধানীতে সব ধরনের বিপণি বিতান, অলিগলির মার্কেট ও দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। শুধুমাত্র কাঁচাবাজার ভেতর থেকে খোলা জায়গায় বসানো হয়েছে।

এদিকে করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে সরকার ঘোষিত বিধি-নিষেধ (লকডাউন) কঠোরভাবে প্রতিপালনে মাঠ পর্যায়ের পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. বেনজীর আহমেদ।

আইজিপি সরকারি বিধি-নিষেধ চলাকালে সবাইকে ঘরে থাকার আহ্বান জানান। একইসঙ্গে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী জরুরি প্রয়োজনে ঘরের বাইরে বের হতে হলে অবশ্যই মাস্ক পরিধানসহ ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণের অনুরোধ করেন।

১ জুলাই থেকে রাজধানীতে জরুরী প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বের হলেই কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোহা.শফিকুল ইসলাম।

কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধকল্পে বৃহস্পতিবার সকাল ৬ টা থেকে ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত সার্বিক কার্যাবলী ও চলাচলে বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

যুক্তিসংগত কারণ ব্যতীত কেউ বের হলে তাকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে। নির্দেশনা বাস্তবায়নে মাঠ পর্যায়ে অত্যন্ত কঠোর অবস্থানে থাকবে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। বিধি-নিষেধ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে দন্ডবিধির ২৬৯ ধারা অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু থাকবে এবং বিদেশগামী যাত্রীরা তাদের আন্তর্জাতিক ভ্রমণের টিকেট ও পাসপোর্ট প্রদর্শন করে গাড়ি ব্যবহার করে যাতায়াত করতে পারবেন।

লকডাউনে সকল ধরণের ক্লাব বন্ধ থাকবে। অলি-গলিতে থাকা সকল দোকান বন্ধ থাকবে। এছাড়া জনসমাবেশ হয় এ ধরনের সামাজিক ও রাজনৈতিক অনুষ্ঠান বন্ধ থাকবে।