সিয়াম নাকি রোশান নায়ক হিসেবে কে বেশি এগিয়ে?

৫০

তরুণ ও জনপ্রিয় অভিনেতা সিয়াম আহমেদ। প্রতিশ্রুতিশীল এই তারকা মডেলিং করতেন টুকটাক! সেইখান থেকে ডাক পান ছোটপর্দায়। জনপ্রিয়তা নিয়ে বেশ কিছু নাটক করেন সিয়াম। এরপর ২০১৮ সালে ‘পোড়ামন ২’ ছবি দিয়ে বড়পর্দায় অভিষেক হয় ড্যাসিং হিরো সিয়ামের।

প্রথম সিনেমা দিয়ে প্রশংসা কুড়িয়ে নেন সিয়াম। এই সাফল্যের পর সিয়ামকে নিয়ে নির্মাতা রায়হান রাফি নির্মাণ করেন তাদের দ্বিতীয় ছবি ‘দহন’। সেখানেও ছক্কা পিটান সিয়াম। পোড়ামন ২ ও দহন ছবি দুটি দিয়ে জুটি হিসেবে সিয়াম-পূজা দর্শক ভক্ত জুটে নেন। সমালোচকদেরও প্রশংসায় ভাসেন সিয়াম।

২০১৯ সালে মুক্তি পায় সিয়ামের আরেক ছবি ‘ফাগুন হাওয়ায়’। ছবিটি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রসহ ৩টি বিভাগে পুরস্কৃত হয়। ২০২০ সালে মুক্তি পায় সিয়ামের ‘বিশ্বসুন্দরী’ ছবিটি। সেটিও প্রশংসা কুড়িয়ে নেয়।

শুধু তাই নয়। সিয়ামের হাতে আছে মুক্তি প্রতীক্ষিত শান, অপারেশন সুন্দরবন, অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন, দামাল, পাপপুণ্য, ইত্তেফাক, বঙ্গবন্ধু সহ একাধিক ছবি। বেশ দাপটের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন এই তারকা।

তরুণ ও জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল রোশান। তার প্রথম চলচ্চিত্র রক্ত ২০১৬ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর মুক্তি পায়। ভারত-বাংলাদেশ যৌথ প্রযোজনার এই ছবিটি দিয়ে তার ফিল্মি ক্যারিয়ার শুরু। যদিও রোশান মডেলিং এর মাধ্যমে কর্মজীবন শুরু করেন। ২০১৭ তে মুক্তি পায় রোশানের আরেক ছবি ‘ধ্যাততেরিকি’।

এরপর ২০১৭ সালে মুক্তি পায় রোশান অভিনীত ভারতীয় বাংলা চলচ্চিত্র ককপিট। অভিনেতা দেব প্রযোজিত এই ছবিতে তিনি দেবের সাথে পার্শ্ব ভূমিকায় অভিনয় করেন রোশান। ২০১৯ সালে মুক্তি পায় রোশানের বেপরোয়া ছবিটি। ২০২১ সালে মুক্তি পায় সিনেমা ‘মেকআপ’।

মুক্তির অপেক্ষায় আছে রোশানের জীন, অপারেশন সুন্দরবন, ওস্তাদ, আশীর্বাদ ও মুখোশ সহ একাধিক ছবি। তবে নায়ক হিসেবে ঢাকাই ছবিতে রোশান ও সিয়াম দুজনই জ্বলে উঠতে পেরেছেন আপন আলোতে। দর্শক জনপ্রিয়তাও লুফে নেয়া নিয়েছেন তারা। সে হিসেবে ঢালিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে সিয়াম নাকি রোশান নায়ক হিসেবে কে বেশি এগিয়ে? উত্তরটা তাদের ভক্তদের জন্যই না হয় তোলা থাক।

You might also like