সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণ : নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫০

২৫

সীতাকুণ্ডের বিএম ডিপোতে বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫০ জনে পৌঁছেছে। সোমবার সকালে ডিপোর কন্টেইনারের ভেতর থেকে আরো একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এদিকে ৩৬ ঘণ্টা পার হলেও আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসেনি। অগ্নিনির্বাপণে কাজ করে যাচ্ছেন সেনাবাহিনী ও ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা।

ফায়ার সার্ভিস বলছে, ‘জ্বলন্ত কনটেইনারগুলোর পাশে একটি কনটেইনারে রাসায়নিক থাকতে পারে। এ কারণে সতর্কতার সাথে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে তারা।’

আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে ঢাকা থেকে আনা হয়েছে হাজমত টেন্ডার (গাড়ি)। যা দিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা যাবে বলে মনে করেছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা।

ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক (প্রশিক্ষণ) মনির হোসেন বলেন, কনটেইনারগুলো সরানোর জন্য হ্যান্ডলিং ইক্যুইপমেন্ট আনছে ডিপো কর্তৃপক্ষ। ছয়টি টিম রেডি করেছি। ৮-১০টি কনটেইনারে এখনো আগুন আছে। আলাদা করে আগুন নেভানো হবে। কেমিক্যাল আগুন নেভাতে দুটি হাজমত টেন্ডারসহ (গাড়ি) ২০ জনের টিম এসেছে ঢাকা থেকে।