সুশান্ত চলে যাওয়ার এক বছরঃ সুশান্তের ‘না বলা কথার গল্প’ শোনালেন রূপম ইসলাম

৪৩

সাত বছরের ক্যারিয়ারে সুশান্ত নিজেকে প্রমাণ করেছেন অনেকবার। ২০১১ সালে মুকেশ ছাবরার পরিচালনায় ‘কাই পো চে’ ছবি দিয়ে বলিউড অভিষেক হয় সুশান্তের। তিনি বলিউডকে উপহার দিয়েছেন ‘পিকে’, ‘এম.এস ধোনি’, ‘কেদারনাথ’, ‘ছিচোড়ে’র মতো অসাধারণ ছবি। তার শেষ ছবি ‘দিল বেচারা’ মুক্তি পাওয়ার আগেই প্রয়াত হয়েছেন অভিনেতা।

নিজের অন্যতম প্রিয় অভিনেতার এভাবে অকালে চলে যাওয়াটা মেনে নিতে পারেননি রূপম ইসলাম। সুশান্তের প্রয়াণ বার্ষিকীর ঠিক আগে ‘এম এস ধোনি…. দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ তারকাকে ট্রিবিউট দিলেন রূপম। আজ ‘রূপম অ্যান্ড ফসিলস’-এর ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পেল ‘না বলা গল্পেরা… সুশান্ত সিং রাজপুত : দ্য আনটোল্ড স্টোরি’।

সুশান্ত বলেছিলেন ধোনির জীবনের অজানা গল্প, সুশান্তের জীবন নয়, মৃত্যুর অনেক দিকও অজানাই রয়ে গিয়েছে। তবে রূপমের গানে ফিরে ফিরে এল সুশান্তের স্মৃতি। প্রয়াত অভিনেতার টেলিস্কোপ, ঝুল বারান্দা, সেই পাখা,স্টারডম, ফ্যানেদের উন্মাদনা- সবই ধরা পড়ল এই গানে, এক কথায় সুশান্তের জীবন যন্ত্রণা তুলে ধরতে চাইলেন এই বাঙালি রকস্টার।

তাঁর আগুন কন্ঠে ঝরে পড়ল, ‘কত অটোগ্রাফের খাতা…কত বাঁধভাঙা জনতা…তবু আজও সে বন্দি একা তার…মিথ্যে রূপকথায়’।

রূপম এক সাক্ষাত্কারে জানিয়েছেন, আজ থেকে প্রায় ২২ বছর আগে একটি গান লিখেছিলেন তিনি, ১৯৯৯ সালে। ফিল্মস্টার বিষয়ক সেই গানটা সেই সময় তাঁর মনে হয়েছিল অসমাপ্ত রয়ে গিয়েছে।

তিনি জানান, ‘আমি এক তারকার গল্প বলা শুরু করেছিলাম, যাকে আমি চিনতাম না। ফলে তার শেষটা জানতাম না আমি। মনে হচ্ছিল সে বাস্তব চরিত্র। কিন্তু জানতে পারিনি কে সে। গতবছর ১৪ই জুন জানলাম তাঁর নাম।…আমার গানটাও শেষ হল নিজে থেকেই’। তবে এই গানটা শেষ না হওয়াই ভালো ছিল, আক্ষেপের সুরে জানালেন রূপম।

একেই হয়ত নাটকীয় সমাপতন বলে। এক শিল্পীর গানে এ ভাবেই মূর্ত হল আর এক শিল্পীর জীবন আলেখ্য।

You might also like