সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস

৩৩

মাত্র মাস দুয়েক আগেই ক্রিকেটপ্রেমীদের শোকের সাগরে ভাসিয়ে পৃথিবীকে বিদায় বলেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার স্পিন কিংবদন্তি শেন ওয়ার্ন। সেই শোক এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি ক্রিকেট বিশ্ব। এর মধ্যেই শনিবার রাতে এক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন সাবেক অজি অলরাউন্ডার অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস।

শনিবার দিনগত রাতে, টাউনসভিল শহর থেকে প্রায় ৫০ কিলোমিটার দূরের হার্ভে রেঞ্জে এ দুর্ঘটনা ঘটে। কুইন্সল্যান্ড পুলিশ জানায়, শনিবার রাত ১১টার পর সাইমন্ডসের গাড়িটি অ্যালিস রিভার ব্রিজের কাছে হার্ভে রেঞ্জ রোডে চলার সময় হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তা থেকে নিচে পড়ে যায়।

অস্ট্রেলিয়ার জরুরি পরিষেবাগুলো তাকে বাঁচানোর সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছিল। কিন্তু গুরুতর আঘাতের কারণে ঘটনাস্থলেই মারা যান ৪৬ বছর বয়সী এ অজি ক্রিকেটার।

এর আগে, ৫২ বছর বয়সে লেগস্পিন কিংবদন্তি শেন ওয়ার্ন ও ৭৪ বছর বয়সে উইকেটরক্ষক ব্যাটার রড মার্শ হার্ট অ্যাটাকে মারা যান। তাদের মৃত্যুর মাত্র দুই মাস পরেই সাইমন্ডসের মৃত্যুর ঘটনা ঘটলো।
সাইমন্ডস অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ২৬টি টেস্ট খেলে ৪০ দশমিক ৬১ গড়ে এক হাজার ৪৬২ রান করেছেন। এছাড়া অফ স্পিন ও মিডিয়াম পেস বোলিংয়ে নিয়েছেন ২৪ উইকেট।

২০০৮ সালের সিডনি টেস্টে ভারতের বিপক্ষে তার দুর্দান্ত ১৬২ রানের অপরাজিত ইনিংস অস্ট্রেলিয়াকে ১২২ রানের বড় জয় এনে দেয়। এ ম্যাচটিই পরে মাঙ্কিগেট কাণ্ড নিয়ে বিতর্কিত খেলায় রূপ নেয়।

১৯৯৮ সালে সাইমন্ডসের ওয়ানডে অভিষেক হয়। ওয়ানডেতে ৩৯ দশমিক ৭৫ গড় আর ৯২ দশমিক ৪৪ স্ট্রাইকরেটে ৫ হাজার ৮৮ রান করেছেন তিনি। এছাড়া রঙ্গিন জার্সিতে তার রয়েছে ১০৩টি ছক্কা। ২০০৩ ও ২০০৭ সালের বিশ্বকাপ জয়ে রেখেছেন অনবদ্য অবদান। অন্যদিকে ক্রিকেটের শর্ট-ফর্মেট টি-টুয়েন্টিতেও দর্শকপ্রিয় ও বিগ-হিটার এ অলরাউন্ডার।