৪৩-এ জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পপি

২১

১৯৯৫ সালের কথা। লাক্স আনন্দ বিচিত্রা ফটোসুন্দরী হিসেবে শোবিজে অভিষেক ঘটে সাদিকা পারভীন পপির। চলচ্চিত্রে আসার আগে পপি শহীদুল হক খান পরিচালিত ‘নায়ক’ নাটকে চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের বিপরীতে প্রথম অভিনয় করেন।

চলচ্চিত্র নির্মাতা মনতাজুর রহমান আকবরের ‘কুলি’ সিনেমা দিয়ে নায়িকা হিসেবে পথচলা শুরু পপির। এরপর দেড় শতাধিক সিনেমায় অভিনয় করেছেন এই চিত্রনায়িকা। চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য এখন পর্যন্ত পেয়েছেন তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কা।

শুধু সিনেমাতেই নয়, বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবেও দুর্দান্ত কাজ করেছেন পপি। সময়ের আবর্তে চলচ্চিত্রে পপির পথচলার প্রায় দুই যুগ পেরিয়ে গেছে। ছোটপর্দায় মাঝে মাঝে যেসব নাটক-টেলিফিল্মে অভিনয় করেছেন, সেখানেও তিনি হয়েছেন নন্দিত।

চলতি বছরের শুরু থেকে আড়ালে রয়েছেন চিত্রনায়িকা পপি। কারো সঙ্গে তার যোগাযোগ নেই। গুঞ্জন উঠেছে, তিনি এক ব্যবসায়ীকে বিয়ে করেছেন। কেউ কেউ বলেছেন, তিনি অন্তঃসত্ত্বা। পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, তারাও জানেন না পপি কোথায় আছেন।

এদিকে পর্দার আড়ালে যাওয়ার আগে নায়িকা পপি ‘কাঠগড়ায় শরৎচন্দ্র’ ও ‘ভালোবাসা প্রজাপতি’ নামে দুটি ছবির শুটিং করছিলেন। মুক্তির অপেক্ষায় আছে পপি অভিনীত সাদেক সিদ্দিকীর ছবি ‘ডাইরেক্ট অ্যাটাক’।

একসময়ের তুমুল জনপ্রিয় এই চিত্রনায়িকা আজ ৪৩-এ পা রাখলেন। ১৯৭৯ সালের এই দিনে খুলনা জেলায় জন্মগ্রহণ করেন পপি। ছয় ভাই-বোনের মধ্যে পপি সবার বড়। পপির দর্শক-ভক্ত ও সহকর্মীদের প্রত্যাশা আড়াল ভেঙ্গে সবার সামনে ফিরবেন পপি।

You might also like