৭টি সংস্থার সঙ্গে এপিএ চুক্তি স্বাক্ষর পিএমও’র

একটি কার্যকর, দক্ষ ও গতিশীল প্রশাসনিক পদ্ধতির আওতায় সরকারের উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় (পিএমও) সাতটি সংস্থার সঙ্গে ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর তেজগাও এলাকায় পিএমওতে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এপিএ চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস এবং পিএমওতে এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক জুয়েনা আজিজ যথাক্রমে প্রধান ও বিশেষ অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

পিএমও’র জ্যেষ্ঠ সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন। এ সময় পিএমও’র আওতাধীন কার্যালয়গুলোর প্রধানগণ, পিএমও’র মহাপরিচালক ও জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

যে সংস্থাগুলো এপিএতে স্বাক্ষর করেছে। সেগুলো হচ্ছে- বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিআইডিএ), বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা), বাংলাদেশ রপ্তানী প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেপজা), পাবলিক-প্রাইভেট অংশীদারিত্ব কর্তৃপক্ষ (পিপিপিএ), জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (এনএসডিএ), এনজিও এ্যফেয়ার্স ব্যুরো ও আশ্রায়ন-২ প্রকল্প।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পক্ষে পিএমও সচিব এবং বিডা, বেজা, বেপজা, পিপিপিএ ও এনএসডিএ’র চেয়ারম্যানগণ, এনজিও অ্যাফেয়ার্স ব্যুরোর মহাপরিচালক ও আশ্রায়ন-২ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক নিজ নিজ সংস্থার পক্ষে ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য এই এপিএ-তে স্বাক্ষর করেন।

অনুষ্ঠনে বক্তব্য প্রদানকালে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব বলেন, এপিএতে পুরস্কার ও শাস্তি দুটিই রাখা উচিৎ।

পিএমও সচিব নিয়মিত পর্যবেক্ষণের প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন।