শুনানিকে সামনে রেখে কৌশলের আশ্রয় নিয়েছে মিয়ানমার

মিয়ানমার বিশ্বকে দেখাতে চাইছে, রোহিঙ্গাদের রাখাইনে ফিরিয়ে নিতে তারা তৎপর

আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে (আইসিজে) গণহত্যা মামলার শুনানিকে সামনে রেখে কৌশলের আশ্রয় নিয়েছে মিয়ানমার। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র বলছে, গণহত্যার অভিযোগে আইসিজেতে গাম্বিয়ার করা মামলার শুনানি শুরু হওয়ার আগেই কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবিরে একটি উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদল পাঠাতে চায় দেশটি। ওই প্রতিনিধিদলের সফরের আয়োজনের অনুরোধ জানিয়ে গত বৃহস্পতিবার বাংলাদেশকে চিঠি দিয়েছে মিয়ানমার।

ঢাকার কূটনীতিকেরা বলছেন, গণহত্যার অভিযোগে আইসিজেতে বিচারের মুখোমুখি হওয়ার আগে মিয়ানমার বিশ্বকে দেখাতে চাইছে, রোহিঙ্গাদের রাখাইনে ফিরিয়ে নিতে তারা তৎপর। অতীতে জাতিসংঘে কোনো আলোচনা কিংবা বৈঠকের আগে তারা এ ধরনের প্রতিনিধিদল পাঠিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বিভ্রান্ত করেছে। এবারও একই কৌশলের আশ্রয় নিয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত মিয়ানমারের প্রতিনিধিদলের বাংলাদেশ সফরের বিষয়টি চূড়ান্ত হয়নি।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ তাদের সরকারি কর্মকর্তাদের পাঠানোর পাশাপাশি রাখাইনে নৃশংসতার জন্য গঠিত স্বাধীন তদন্ত কমিশনের (আইসিওই) একটি প্রতিনিধিদলকেও বাংলাদেশে পাঠাতে চাইছে। ওই কমিশনকে কক্সবাজার সফরের অনুমতি দিতে সম্প্রতি প্রাচ্যের একটি প্রভাবশালী দেশ বাংলাদেশকে কয়েকবার অনুরোধও করেছে।

নেদারল্যান্ডসের দ্য হেগে আইসিজেতে ১১ নভেম্বর মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যার মামলা করে গাম্বিয়া। এতে সমর্থন দিয়েছে ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা (ওআইসি)। আইসিজেতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার করা গণহত্যার মামলার শুনানি আগামী ডিসেম্বরের ১০ থেকে ১২ তারিখ হতে যাচ্ছে। শুনানির আগেই কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবিরে জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের নিয়ে গড়া একটি সরকারি প্রতিনিধিদল পাঠাতে মরিয়া হয়ে উঠেছে মিয়ানমার।

অনলাইন নিউজ ডেস্ক/ বিজয় টিভি

You might also like